আবারও সহজ ম্যাচ হাত ছাড়া করলো হায়দ্রাবাদ

আইপিএলে চলতি আসরের ৯ নম্বর ম্যাচে রাত ৮টায় চেন্নাইয়ের এমএ চিদাম্বরাম স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবং সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। খেলায় টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মা। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৫০ রান তোলে মুম্বাই। ১৫১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু করেও শেষ পর্যন্ত পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ডেভিড ওয়ার্নারের দল।

১৫১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে হায়দ্রাবাদকে দারুণ সূচনা এনে দেন ওয়ার্নার-বেরিস্ট্রো জুটি। ৭ ওভারে ৬৭ রান করার এই জুটির ঝড় থামে অষ্টম ওভারের ২ নম্বর বলে। নিজের ভুলে ‘হিট স্ট্যাম্প আউট’ হয়ে প্রথমে মাঠ ছাড়েন বেরিস্ট্রো। ২২ বলে ৪৩ রান করে তিনি মাঠ ছাড়লে মনিষ পাণ্ডেকে নিয়ে খেলা চালিয়ে যান অধিনায়ক ওয়ার্নার।

কিন্তু মাঠে বেশিক্ষন টিকে থাকতে পারেননি মনিষ। ৭ বলে ২ রান নিয়ে সাজঘরে ফিরেন তিনি। ওয়ার্নার একা দলকে জয়ের পথে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও ১২ তম ওভারে তিনিও উইকেট বিলিয়ে আসেন। ৩৪ বলে ৩৬ রান করে আউট হোন তিনি। পরে বিজয় সংকরের ২৫ বলে ২৮ রানের ক্যামিও হায়দ্রাবাদকে পরাজয়ের হাত থেকে রক্ষা করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ১৯.৪ ওভারে ১৩৭ রানে অলআউট হয়ে থামে হায়দ্রাবাদের ইনিংস।

অন্যদিকে, প্রথম ইনিংসে দারুণ শুরু করে মুম্বাইয়ের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা এবং কুইয়েন্টান ডি কক। পরে ২৫ বলে ৩২ রান করে রোহিত আউট হলে কমতে থাকে মুম্বাইয়ের রানের গতি। উইকেটের একপাশ থেকে ডি কক রানের চাকা সচল রাখার চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ৩৯ বলে ৪০ রান করে থামেন তিনিও। ম্যাচে আর কোনো ঝলক দেখা না গেলেও ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দানব পোলার্ডের ৩৫ রানের কল্যাণে ২০ ওভারে মুম্বাইর খাতায় উঠে ১৫০ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
মুম্বাই: ১৫০/৫ (২০.০ ওভার)
ডি কক ৪০(৩৯), রোহিত ৩২(২৫)
মুজিব ২৯/২ (৪ ওভার)

হায়দ্রাবাদ: ১৩৭ ও অলআউট (২০ ওভার)
বেরিস্ট্রো ৪৩ (২২), ওয়ার্নার ৩৬(৩৪)
বোল্ট ২৮/৩ (৩.৪ ওভার)
চাহার ১৯/৩ (৪ ওভার)

একাদশ-
মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স: কুইন্টন ডি কক, রোহিত শর্মা, সুরাইয়া কুমার যাদব, ইশান কিশান, হার্দিক পান্ডিয়া, কায়রন পোলার্ড, করুনাল পান্ডিয়া, অ্যাডাম মিলনে, রাহুল চাহার, ট্রেন্ট বোল্ট ও জসপ্রীত বুমরাহ।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ: ডেভিড ওয়ার্নার, জনি বেয়ারস্টো, মনশ পান্ডিয়া, বিজয় শঙ্কর, বিরাট সিং, আব্দুল সামাদ, অভিষেক শর্মা, রশিদ খান, ভুবনেশ্বর কুমার, মুজিব উর রহমান ও খালেদ আহমেদ।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *